1. admin@dailyamarnews24.com : admin :
শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নাটোর পৌরসভায় উমা চৌধুরী জলি ও বাগাতিপাড়া পৌরসভায় শরিফুল ইসলামের জয় নাটোরে দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর বিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও মোঃ তমাল হোসেন উমা চৌধুরী জলির নির্বাচনী প্রচারনায় ইউপি চেয়ারম্যান নূরুজ্জামান কালু আজ থেকে সারা দেশে ১১ দফা বিধি-নিষেধ মেনে চলতে হবে দায়িত্ব ভার গ্রহণ অনুষ্ঠান ৪ নং লক্ষিপুর খোলাবাড়িয়া ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান আহত মেম্বার ফজর আলী দেওয়ান কে দেখতে হাসপাতালে মেম্বার শরিফুল অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেন মেম্বার ফজর আলী দেওয়ান জমে উঠেছে ১ নং নাজিরপুর ইউনিয়নের নির্বাচনী প্রচারণা চোখ রাঙাচ্ছে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন , উদ্ভূত এমন পরিস্থিতিতে আন্ত মন্ত্রণালয় বৈঠক আজ মহিলা উদ্যোক্তাদের মাঝে বিনামূল্যে সেলাই মেশিন, হাঁস মুরগী বিতরণ ও হস্তশিল্পে সহায়তা প্রদান ,বাস্তবায়নে শক্তি ফাউন্ডেশন।

বাসর রাত কাটিয়েই বিয়ের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই বিচ্ছেদ নবদম্পতির

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৪৭ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার::

বাসর রাত কাটিয়েই বিয়ের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই বিচ্ছেদ নবদম্পতির। নতুন বউকে ‘তালাক’ ঘোষণা করল স্বামী। বাংলাদেশের (Bangladesh) চাঁপাইনবাবগঞ্জের এই ঘটনায় তাজ্জব সকলে। দুই পরিবারের সম্মতিতে যেমন বিবাহ হয়েছিল, তেমনই তাদের বিচ্ছেদেও (Divorce) অনুমোদন ছিল পরিবারের সদস্যদের। এমন জানা গিয়েছে। কিন্তু এই স্বল্প সময়ের মধ্যে কী এমন ঘটল, যাতে নববধূকে সম্পূর্ণ প্রত্যাখ্যান করল স্বামী? ইতিউতি গুঞ্জন, স্ত্রীর সঙ্গে যে বনিবনা হবে না, তা নাকি বুঝেছিলেন বর। আর তাই এমন সিদ্ধান্ত।
গত শুক্রবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বাসিন্দা এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয় একই জায়গার যুবতীর সঙ্গে। সেদিনই ছিল বাসর রাত। পরদিন অর্থাৎ শনিবার বউভাতের আয়োজন করা হয়েছিল পাত্রের পরিবারের তরফে। সেই অনুষ্ঠানে দুই পরিবারের স্বজনরা হাজির হয়েছিলেন। চলে অতিথি আপ্যায়ণ, কব্জি ডুবিয়ে খাওয়াদাওয়া। কিন্তু দুপুর গড়িয়ে বিকেল নামতেই শোনা গেল ভাঙনের সুর। শেষ পর্যন্ত রাত ৮ টা নাগাদ বিচ্ছেদ হয়েই গেল নব দম্পতির।

কিন্তু বাসর রাত পেরতেই হঠাৎ এমন সিদ্ধান্ত কেন? তালাকনামা (Talaq) সূত্রে জানা গিয়েছে, সেখানে লেখা হয় – ‘‘১৭ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক একে অন্যের সহিত ৬০ হাজার টাকা দেনমোহর ধার্যে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হইয়াছিলাম। কিন্তু বিভিন্ন কারণে সাংসারিক বনিবনা না হওয়ায় আমরা উভয়ে আপসে বিবাহ বন্ধন ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।”

শনিবার বিকেলে অতিথি আপ্যায়ণ পর্ব মিটতেই শুরু হয় তালাক প্রক্রিয়া। বিকেল থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত আনোয়ার হোসেন নামে এক কলেজ শিক্ষকের বাড়িতে বর ও কনে পক্ষের গুরুজনেরা বসে উভয় পক্ষের সম্মতিতে বিবাহ বিচ্ছেদের বিষয়টি শেষ করেন। তালাক প্রক্রিয়ার দায়িত্বে ছিলেন নিকাহ রেজিস্ট্রার মনিরুল ইসলাম। রেজিস্ট্রার মনিরুল ইসলাম জানান, তালাক সম্পাদনের জন্য বিকেলে কলেজ শিক্ষক আনোয়ার স্যারের বাড়িতে ডাকা হয়। তিনি শুধু গিয়ে উভয় পরিবারের সম্মতিতে তালাক সম্পাদন করেছেন। তবে কী কারণে এই তালাক, সে সম্পর্কে তাঁকে কোনও পক্ষই কিছু বলেনি। তালাকনামায় তারা যেমনটা বলেছে, তেমনটাই লেখা হয়েছে। কারণ যাই হোক না কেন, বিয়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই বিচ্ছেদের খবর শুনে অবাক সকলেই।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2021 Daily Amar News 24
Theme Customized By Theme Park BD